কলিখাতা

Bengali Little Magazine

বাংলা সাহিত্য পত্রিকার ইতিহাসে ছোট পত্রিকা অর্থাৎ লিটল ম্যাগাজিন একটু বেয়াদপ ছোকরার ভঙ্গীতে অবতীর্ণ হলেও সাহিত্য ও নতুন প্রজন্মের চিন্তা ধারায় এর ভূমিকা বিশেষ মর্যাদা পূর্ণ। ১৯২৩ এর “কল্লোল” পত্রিকার মাধ্যমে যার সূত্রপাত, আজ অনেকটা পথ পেরিয়ে বাংলা সাহিত্যে হাজারো ছোট পত্রিকা স্বমহিমায় বিরাজমান। এর পর “কল্লোল”-এর দেখানো পথ অনুসরণে প্রকাশিত হয় ‘উত্তরা’ (১৯২৫), ‘প্রগতি’ (১৯২৬), ‘কালিকলম’ (১৯২৬), ‘পূর্বাশা’ (১৯৩২)। লিটল ম্যাগাজিনে যেমন দেখা যায় উদ্ভট বিষয় ভিত্তিক সাহিত্য তেমনি পত্রিকার নামেও থাকে অন্যন্যতার ছোঁয়া। যেমন কলিকাতা লিটল ম্যাগাজিন লাইব্রেরি ও গবেষণা কেন্দ্রর প্রতিষ্ঠাতা ও লেখক শ্রী সন্দীপ দত্তের কথায় “ নাম দিয়ে পত্রিকা চেনা যায়। বোঝা যায় পত্রিকাটির বিষয়। বিষয়ানুযায়ী নামকরণ পত্রিকার উদ্দেশ্যের কথাই ব্যক্ত করে, লিটল ম্যাগাজিনের নামকরণ বিচিত্র।”

উদ্ভট বিষয়, খামখেয়ালী আচরণ, বিতর্কিত ও সহজাত লেখনভঙ্গি এই সব অন্যন্যতায় ভরপুর ছোট পত্রিকা বা লিটল ম্যাগাজিন প্রজন্মের পর প্রজন্ম এগিয়ে চলেছে স্বমহিমায়।


সম্পাদক
বিজয় দাস

যুগ্ম সহ-সম্পাদক
ঋষভ চৌধুরী, সুদীপ চক্রবর্তী

সদস্য বৃন্দ
অভিজিৎ শীল, চয়ঞ্জীব শূর, সংলাপ দাস, অর্ণব মণ্ডল, অগ্নিমিত্র দাস,
অমিত দাস, শান্তনু গাইন, শোভিক সরকার